«

»

আগ ২৩

Print this Post

অতিরিক্ত পানি পানে স্বাস্থ্য ঝুঁকি!

জীবন ধারণের জন্য পানি অপরিহার্য। সব ক্ষেত্রে সাধারণত আমরা পানি পানের সুফল দিকগুলো দেখতে পাই, কিন্তু আমরা কি জানি পানি পানেও মৃত্যু ঘটতে পারে! জ্বি হ্যাঁ। পানি পানে যেমন শরীরের উপকার আছে, তেমনি অত্যাধিক পানি পানে মৃত্যুও ঘটতে পারে!

বিজ্ঞানীদের মতে, প্রায় সবকিছুই বিষাক্ত হতে পারে, আবার নাও হতে পারে, এটা নির্ভর করে সংশ্লিষ্ট উপাদানের পরিমাণের উপর। যেমন, প্রায় ছয় লিটার পানি ১৬৫ পাউন্ড ওজনধারী একজন মানুষের মৃত্যুর জন্য দায়ী হতে পারে। আমেরিকান ক্যামিস্ট্রি সোসাইটির এক প্রতিবেদনে বলা হয় যে, পানি পানে মৃত্যু বা Water Intoxication এ আক্রান্ত হওয়া রোগীদের মধ্যে তরুণ যুবক বা টিনেজারদেরই বেশী দেখা যায়। এর কারণ হিসেবে বলা হয়েছে যে, হয়ত তারা নিজেদের মধ্যে পানি পান প্রতিযোগীতায় লিপ্ত হয়, অর্থাৎ “কে কার চেয়ে বেশী পানি পান করতে পারবে” এই ধরণের প্রতিযোগীতা করতে গিয়ে ওয়াটার ইন্টোক্সিকেন্টে আক্রান্ত হয়। এই অবস্থায় পানি ভিকটিমের শরীরে বিষের ন্যায় কাজ করে, যার পরিণাম মৃত্যুও হতে পারে!
যখন কেউ প্রয়োজনের তুলনায় অত্যাধিক পানি পান করে, তখন তার শরীরে রক্তের সোডিয়াম বা মিনারেলের ঘনত্ব কমে যায়, যাকে মেডিকেলের ভাষায় হায়পোন্যাট্রেমিয়া বলে। সাধারণত রক্তে সোডিয়ামের মাত্রা প্রতি লিটারে ১৩৫ মিলিমিটারের নিচে নেমে গেলেই এই ঘটনা ঘটে।
.
ওয়াটার ইন্টোক্সিকেশনের কিছু উপসর্গ হল মাথা ব্যথা, ক্লান্তি, বমি বমি ভাব বা বমি করা, অতিরিক্ত প্রস্রাব, এবং মানসিক বিপর্যস্থতা বা এলোমেলো চিন্তা। এছাড়াও, অতিরিক্ত পানি পানে শরীরে রক্তের ভলিউম বেড়ে যায়, এতে রক্তনালী ও হৃদপিণ্ডের উপর বাড়তি চাপ সৃষ্টি হয় যার ফলে আক্রান্ত ব্যক্তির খিঁচুনী হতে পারে। সাধারণত, আমাদের কিডনী প্রতি ঘন্টায় সর্বোচ্চ ১০০০ মিলিলিটার পানি ফিল্টার করতে পারে। প্রয়োজনের চেয়ে অতিরিক্ত পানি পান করলে কিডনীর সাধারণ রেচন প্রক্রিয়ার উপর বাড়তি চাপ পড়ে।
.
যদি প্রাত্যাহিক খাবার তালিকায় তরল জাতীয় খাদ্য বেশী থাকে, তাহলে পানি পানের পরিমাণ স্বাভাবিকের চেয়ে কম হলেও সমস্যা নেই। ডাক্তাররা সাধারণত কেবল মাত্র পিপাসা পেলেই পানি পান করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। অন্যদিকে, প্রস্রাবের রঙ যদি স্বাভাবিক থাকে তাহলে বুঝে নিতে হবে যে, শরীরে পানির চাহিদা নেই। কিন্তু প্রস্রাবের রঙ হলদেটে হলে বুঝে নিতে হবে যে শরীরে পানির চাহিদা রয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Permanent link to this article: http://btebmts.com/%e0%a6%85%e0%a6%a4%e0%a6%bf%e0%a6%b0%e0%a6%bf%e0%a6%95%e0%a7%8d%e0%a6%a4-%e0%a6%aa%e0%a6%be%e0%a6%a8%e0%a6%bf-%e0%a6%aa%e0%a6%be%e0%a6%a8%e0%a7%87-%e0%a6%b8%e0%a7%8d%e0%a6%ac%e0%a6%be%e0%a6%b8/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

Translate »
Return to Top ▲Return to Top ▲